সর্বশেষ প্রকাশ
Home / চিকিৎসা / মাতৃত্বকালীন সুবিধা সংক্রান্ত নীতিমালা গুলো কি কি?
মাতৃত্বকালীন সুবিধা সংক্রান্ত নীতিমালা
মাতৃত্বকালীন সুবিধা সংক্রান্ত নীতিমালা গুলো কি কি?

মাতৃত্বকালীন সুবিধা সংক্রান্ত নীতিমালা গুলো কি কি?

মাতৃত্বকালীন সুবিধা সংক্রান্ত নীতিমালা

১। একজন মহিলা শ্রমিক অন্তঃস্বত্তা হলে প্রসবের দিনের অব্যবহিত আগে অন্ততঃ ৬ (ছয়) মাস পূর্বে কারখানায় নিযুক্ত হয়ে থাকলে নিু বর্ণিত সুবিধাদি প্রাপ্য হবে ঃ

ক) মাতৃত্বকালীন ছুটি ও
খ) মাতৃকল্যাণ আর্থিক সুবিধা।

২। একজন মহিলা শ্রমিক কিভাবে ছুটি এবং আর্থিক সুবিধা প্রাপ্য হবে তা নিুে প্রদ্ত্ত হলো ঃ

ক) মাতৃত্বকালীন ছুটি ঃ প্রত্যেক মহিলা শ্রমিক সন্তান প্রসবের সম্ভাব্য তারিখের পূর্বে ৮ (আট) সপ্তাহ এবং সন্তান প্রসবের দিনসহ পরে ৮ (আট) সপ্তাহ মোট ১৬ (ষোল) সপ্তাহ পূর্ণ বেতনে মাতৃত্বকালীন বা প্রসূতীকালীন ছুটি ভোগ করতে পারবে।

খ) মাতৃকল্যাণ সুবিধা পরিশোধের পদ্ধতি ঃ মাতৃকল্যাণ সুবিধা পাওয়ার অধিকারিণী মহিলা শ্রমিককে নিুোক্ত ৩ টি পন্থার মধ্যে যে ভাবে তিনি চান সে ভাবে তার প্রাপ্য সুবিধা গ্রহণ করতে পারবে।

১) আট সপ্তাহের মধ্যে মহিলার সন্তান প্রসবের সম্ভাবনা রয়েছে এই মর্মে কারখানার চিকিৎসক কর্তৃক স্বাক্ষরিত প্রত্যয়ন পত্র পেশ করার ৩ (তিন) কর্মদিবসের মধ্যে অথবা

২) প্রসবের দিনসহ প্রসবের দিন পর্যন্ত উক্ত মেয়াদের জন্য সন্তান প্রসবের প্রত্যায়ন পত্র পেশ করার ৩ (তিন) কর্ম দিবসের মধ্যে অবশিষ্ট দিনসমূহের জন্য তিনি যে সন্তান প্রসব করেছেন অনুরূপ প্রমাণ পত্র পেশ করার ৮ সপ্তাহের মধ্যে অথবা

৩) উপরোক্ত সম্পূর্ণ মেয়াদের জন্য তিনি যে সন্তান প্রসব করেছেন এ মর্মে প্রমাণ পেশ করার ৩ (তিন) কর্ম দিবসের মধ্যে।

৩। এছাড়া মাতৃকল্যাণ সুবিধা পাওয়ার অধিকারিনী কোন মহিলা শ্রমিক যদি প্রসবের দিন বা মাতৃকল্যান সুবিধা পাওয়ার মেয়াদের মধ্যে মৃত্যুবরণ করে এবং নবজাতাক জীবিত থাকে তবে তার মনোনীত ব্যক্তি বা আইনগত প্রতিনিধি অথবা নবজাতকের প্রতিপালনের দায়িত্ব বহনকারী সংশি¬ষ্ট মহিলা শ্রমিককে মাতৃকল্যাণ সুবিধা প্রাপ্য হবে।

৪। আর্থিক সুবিধা পাওয়ার জন্য করণীয় ঃ মাতৃকল্যাণ সুবিধা পাওয়ার জন্য সংশি¬ষ্ট মহিলা শ্রমিককে চিকিৎসকের প্রত্যায়ন পত্রসহ সরকার নির্ধারিত নিধিষ্ট ফরমে প্রথম ৮ (আট) সপ্তাহের ছুটি শুরুর কমপক্ষে ৪৮ (আটচল্লি¬শ) ঘন্টা পূর্বে কর্তৃপক্ষের নিকট নোটিশ প্রদান করতে হবে ও ছুটির জন্য নির্ধারিত ফরমে আবেদন করতে হবে। পরবর্তী ৮ (আট) সপ্তাহের আর্থিক সুবিধার জন্য সন্তান প্রসবের প্রমাণ পত্রসহ নোটিশ প্রদান করতে হবে। নোটিশ এবং ছুটির নির্ধারিত ফরম ইউনিট এক্সিকিউটিভ এর নিকট পাওয়া যাবে। মাতৃকল্যাণ সুবিধা গ্রহনের জন্য সংশি¬ষ্ট মহিলা শ্রমিক নোটিশ ও ছুটির আবেদন পত্র পূরণের জন্য ইউনিট এক্সিকিউটিভ এর সহযোগিতা গ্রহন করবে। এক্সিকিউটিভ মহিলা শ্রমিকের স্বাক্ষরিত নোটিশ এবং ছুটির আবেদন পত্র গ্রহনের পর পরীক্ষার জন্য রেকর্ড কিপারের কাছে প্রেরণ করবেন। রেকর্ড কিপার শ্রমিকের পার্সোনাল ফাইল দেখে সকল তথ্য পূরণ করে উক্ত ছুটির আবেদন পত্র ও নোটিশ ইউনিট একাউন্টেন্ট এর নিকট হস্তান্তর করবেন। একাউন্টেন্ট মহিলার পাওনা প্রথম কিস্তির ৮ (আট) সপ্তাহের বিল তৈরী করে ছুটি ও বিল কর্তৃপক্ষের অনুমোদন করানোর পর দিবেন। মহিলা শ্রমিক তখন ইউনিট একাউন্টেন্ট এর নিকট থেকে মজুরী সীট স্বাক্ষর করে টাকা গ্রহন করবে। উপরোক্ত সকল কাজ সম্পন্ন করে নোটিশ প্রদানের মাধ্যমে ৪৮ ঘন্টার মধ্যে মহিলা শ্রমিককে তার প্রাপ্য পাওনা পরিশোধ করতে হবে। অনুরূপ ভাবে মহিলা শ্রমিক এক্সিকিউটিভ এর কাছ থেকে সন্তান প্রসবের প্রমাণপত্র পেশ করার ৩ (তিন) কর্ম দিবসের মধ্যে পরবর্তী কিস্তির টাকা পরিশোধ করতে হবে।

৫। আর্থিক সুবিধা প্রদান পদ্ধতি ঃ মাতৃত্বকালীন ছুটিতে যাওয়ার পূর্ববর্তী ৩ (তিন) মাসে তারপ্রাপ্য মোট মজুরী এবং সঠিক উপস্থিতির ভিত্তিতে মাতৃকালীণ আর্থিক সুবিধা প্রাপ্য হবে। এ ক্ষেত্রে প্রাপ্য মোট মজুরীকে সঠিক উপস্থিতির দিন দ্বারা ভাগ করে গড়ে প্রতিদিন যে মজুরী প্রাপ্য হয়, তা প্রসূতীকালীণ ছুটির দিনগুলির সাথে গুণ করে যে পরিমাণ অর্থ হয় তা মহিলা শ্রমিকের প্রাপ্য হবে।

৬। মাতৃকালীণ অবস্থায় যে সময়ে মহিলা শ্রমিককে কাজ করানো যাবে না বা উক্ত মহিলা কাজ করতে পারবে না তা নিুরূপ ঃ
ক) সন্তান প্রসবের দিন থেকে পূর্ববর্তী ৮ (আট) সপ্তাহ সন্তান প্রসবকারিনী কোন মহিলা শ্রমিককে দিয়ে কারখানা কর্তৃপক্ষ কাজ করাতে পারবে না।

খ) সন্তান প্রসবকারিনী কোন মহিলা শ্রমিক সন্তান প্রসবের দিন থেকে পরবর্তী ৮ (আট) সপ্তাহ শিল্প কারখানায় কাজ করতে পারবে না।

গ) সরকার কর্তৃক অনুমোদিত মাতৃকল্যাণ সুবিধা সংক্রান্ত আইনের কোন বিধান কারখানা কর্তৃপক্ষ (মালিক) লংঘন করলে এবং দোষী সাব্যস্ত হলে ৫০০ (পাঁচশত) টাকা পর্যন্ত এবং সংশি¬ষ্ট মহিলা শ্রমিক কর্তৃক আইন ভঙ্গ হলে ও দোষী সাব্যস্ত হলে অনধিক ১০ (দশ) টাকা পর্যন্ত জরিমানায় দন্ডিত হবে।

৭। যে কারণে মাতৃকল্যাণ সুবিধা পাওয়া যাবে না ঃ সন্তান প্রসবের তিন মাসের মধ্যে এতদবিষযক প্রমাণ পত্র পেশ না করলে সংশি¬ষ্ট মহিলা শ্রমিক মাতৃকল্যাণ ছুটি ও আর্থিক সুবিধা পাবে না।

পরিচিতি Mashiur

He is Garment Automation Technologist and ERP Soft Analyst for clothing industry. He is certified Echotech Garment CAD Professional-China, Aptech-India, NCC-UK and B.Sc. in CIS- London Metropolitan University, M.Sc. in ICT-UITS. He is working as a Successful Digital Marketer and Search Engine Specialist in RMG sector during 2005 to till now. Contact him- apparelsoftware@gmail.com

এটাও চেক করতে পারেন

পোকা মাকড় নিয়ন্ত্রণ নীতিমালা

পোকা মাকড় নিয়ন্ত্রণ নীতিমালা Pest Control Policy কি?

পোকা মাকড় নিয়ন্ত্রণ নীতিমালা পোকা মাকড় নিয়ন্ত্রণ নীতিমালা Pest Control Policy সুনিশ্চিত করার লক্ষ্যে একজন …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।