অগ্নিনির্বাপক সরঞ্জামাদি কি? অগ্নিনির্বাপক সরঞ্জামাদির তালিকা গুলো কি কি?

অগ্নি নির্বাপন এর প্রধান প্রধান ঝুঁকি সমূহ কি কি
অগ্নি নির্বাপন এর প্রধান প্রধান ঝুঁকি সমূহ কি কি

অগ্নিনির্বাপক সরঞ্জামাদি তালিকা

অগ্নিনির্বাপক সরঞ্জামাদি -অগ্নিনির্বাপক দল, উদ্ধারকারী দল এবং প্রাথমিক চিকিৎসক দলের সংগঠন এবং দায়িত্ব ও কর্তব্য বিভিন্ন ইউনিট/শাখা/সেকশন অনুযায়ী প্রয়োজনীয় সকল সংযুক্ত ক্রোড়পত্রে সন্নিবেশিত করা হল। বিশেষভাবে উল্লেখ্য যে, নিজ ফ্লোরে অগ্নিকান্ড না ঘটিলে দলনেতার নির্দেশ ব্যাতিত যে কোন দলের কোন সদস্য স্থান ত্যাগ করিবে না। দলনেতা পি.এম, জি.এম অথবা নির্বাহী পরিচালকের সংগে আলোচনা পূর্বক পরবর্তী নির্দেশ প্রদান করবে। প্রতিষ্ঠান। সঠিক সময়ে পোশাক জাহাজীকরন ও উন্নত মানসম্পন্ন পোশাক রপ্তানী করায় বাজারে ইহার অবস্থান উল্লেখ্যযোগ্য। এই অভূতপূর্ব সাফল্য বজায় রাখতে সঠিক সময়ে উৎপাদনের বিকল্প নাই। আর এই সঠিক সময়ে উৎপাদনের জন্য চাই নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ। ফলে মেইনটেন্যন্স কো-অর্ডিনেটর হিসাবে তার প্রধানতম দায়িত্বই হল কারখানার প্রয়োজনে সর্বদা বিদ্যুৎ সরবরাহের নিশ্চয়তা বিধান করা। …

  • হোসপাইপ (১০০ ফুট) বক্স সহ
  • গংবেল (৫কেজি)
  • ফায়ার সাইরেন
  • ফায়ার বাকেট
  • বাকেট স্টেন (২টি বাকেট রাখার মত)
  • ষ্ট্রেচার
  • ফায়ার হুক
  • গামবুট
  • ডাস্ট মাস্ক
  • গ্যাস মাস্ক (হাই টক্সি)
  • সেইফটি গগলস
  • হ্যান্ড গ্লোভস
  • ফায়ার ব্লাংকেট
  • লক কাটার
  • ফায়ার বিটার
  • স্মোক ডিটেক্টর
  • ইয়ার মাফ
  • রশি (১০০ ফুট)
  • এক্সিট লাইট বক্স
  • ইমারজেন্সী এক্সিট লাইট বক্স
  • লাঞ্চ বেল
  • ভিজুয়্যাল ফায়ার এলার্ম (বয়লার রুমের জন্য)
  • র্চাজার লাইট (আই.পি.এস ব্যাকআপ সিস্টেম)
  • ফায়ার ইকোয়িপ
  • ন্টস বক্স
  • টু স্পট লাইট
  • রাবাার ম্যাট
  • এবোনাইট সীট
  • অগ্নিনির্বাপক যন্ত্র (এ.বি.সি)
  • অগ্নিনির্বাপক যন্ত্র (সি.ও.টু)
  • নির্দেশিকা
  • বোর্ড (লাল এর মধ্যে হলুদ ডোরা)
  • ধূয়া সনাক্তকারী যন্ত্র
  • এক্সিট সাইন
  • লাইন নাং-১-১০

Click Here for English Version

ফায়ার ফাইটিং দলের দায়িত্ব ও কর্তব্যফায়ার ফাইটিং দলের দায়িত্ব ও কর্তব্য

  • আগুন লাগার সাইরেন শোনার সঙ্গে সঙ্গে ইলেক্ট্রিশিয়ান/ফায়ার ফাইটিং পার্টির দলনেতা ফ্লোরের বিদ্যুতের মেইন সূইচ অফ করবে।
  • আগুন লাগার সাইরেন শোনার সঙ্গে সঙ্গে ফায়ার ফাইটিং পার্টির প্রত্যেককে দ্রুত নির্দিষ্ট অগ্নি নির্বাপনি যন্ত্রের কাছে চলে যাবে ও যন্ত্র নামিয়ে নেমে এবং একত্রিত হয়ে আগুন কোথায় লেগেছে তা জানার চেষ্টা বা পরবর্তী নির্দেশের জন্য অপেক্ষা করবে। তবে যদি নিজ ফ্লোরে আগুন লাগে তাহলে দ্রুত আগুনের কাছে যাবে এবং আগুনের দিকে তাক করে অগ্নি নির্বাপনী যন্ত্র ব্যবহার করবে।
  • ফায়ার ফাইটাররা কে কোনটি অগ্নি নির্বাপক যন্ত্র ব্যবহার করবে তা পূর্বেই নির্ধারিত থাকবে।
  • ফায়ার ফাইটাররা প্রয়োজনে সিঁড়ির সামনে রক্ষিত ড্রামের পানি, ফায়ার হোস পাইপের সাহায্যে আগুন নিভাতে চেষ্টা করবে।
  • বৈদ্যুতিক আগুন নিভাতে শুধুমাত্র কার্বন ডাই অক্সাইড ব্যবহার করবে।
  • ফায়ার ব্রিগেড দল আসলে তাদেরকে সর্বভাবে সাহায্যে করবে।
  • দলের সবাই দলনেতার নেতৃত্বে কাজ করবে।
  • নিজের ফ্লোরে আগুন না লাগলে পি.এম বা কর্তৃপক্ষের পরবর্তী নির্দেশের অপেক্ষায় থাকবে।

নিরাপত্তা শ্লোগান

  • আসুন সকলে মিলে  অগ্নি মহড়ায় অংশ গ্রহন করি
  • পোশাক শিল্প  কারখানায় শ্রমিকদের নিরাপত্তা বিধান করি।
  • কাজের সময় গেটের তালা বন্ধ থাকবেনা
  • পদদলিত হয়ে শ্রমিক আর মরবেনা।
  • কারখানায় চলাচলের পথ বাধাঁমুক্ত রাখবো
  • কখনো আগুন লাগলে সারিবদ্ধভাবে বের হয়ে যাবো।
  • নিয়মিত অগ্নি মহড়া করুন
  • নিরাপদ নির্গমন অভ্যস্ত হউন।
  • সকলে অগ্নি সচেতন হউন
  • জান ও মাল বাচাঁন।
  • অগ্নি নির্বাপক যন্ত্র ব্যবহার উপযোগী রাখবো
  • প্রয়োজনে তা অগ্নি দূর্ঘটনায় কাজে লাগাবো।
  • সকলে মিলে বহিঃর্গমন মহড়ায় অংশ নেবো
  • অগ্নি দূর্ঘটনা থেকে শ্রমিকদেরকে রক্ষা করে পোশাক শিল্পের অস্তিত্ব রক্ষায় সহায়তা করবো।

আগুন লাগলে চালকদের কতর্ব্য ঃ

  • ফায়ার সাইরেন বা সংকেত শোনার সাথে সাথে নিজ নিজ গাড়ী অতি দ্রুত মেইন গেটের বাইরে নিয়ে যাবে। তবে রাস্তার উপরে কোনক্রমেই গাড়ী দাঁড় করে রাখা যাবেনা যাতে  ফায়ার ব্রিগেডের গাড়ী সহ অন্য গাড়ী চলাচলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি না হয়।
  • ফ্যাক্টরীর ভিতরে গাড়ী পার্কিং-এর সময় খেয়াল রাখতে হবে যেন গাড়ীর মুখ সামনের দিকে বা বাহির মুখী হয়ে থাকে।
  • গাড়ী পার্কিংএর সময় খুব প্রয়োজস না হলে হ্যান্ড ব্রেক লাগাবেন না। যাতে প্রয়োজনে ঠেলে গাড়িটি সরানো যায়।
  • অকেজো / মেরামতাধীন গাড়ী এমনভাবে পাকিং করতে হবে যেন সম্ভাব্য অগ্নি ঝুঁকি থেকে দুরে থাকে এবং পথের মাঝখানে গাড়ী দাড় করে রাখা যাবে না।

অগ্নি দূর্ঘটনা ঘটলে নি¤œলিখিত বিষয়ে সাবধান থাকতে হবে ঃ

  • ধোয়াঁ শ্বাস-প্রশ্বাসের সংগে ভিতরে নেয়া যাবেনা।
  • কাপড় বা ভেজা রুমাল/গামছা দিয়ে মুখ ঢাকতে হবে।
  • যদি কাবর্ন ডাই অক্সাইড (সিওটু) ব্যবহার করা হয় তবে নাকে বা গলায় ধোঁয়া প্রবেশের ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে।
  • সকল দরজা জানালা খুলে দিতে হবে যাতে সব ধোয়াঁ বেরিয়ে যায়।
  • সবাই এক সংগে বের হবার জন্য দরজার দিকে যাওয়ার সময় তাড়াহুড়া করা যাবেনা।
  • লাইন ধরে শৃংখলার সহিত বের হতে হবে।
  • জরুরী নির্গমন পথ অথবা সহজে যাওয়া যায় এমন পথ দিয়ে বের হতে হবে।

প্রশাসনিক শাখা কর্তৃক করনীয় বিষয়সমূহ

  • আহত লোকজনকে প্রয়োজন অনুযায়ী নিকটবর্তী হাসপাতালে প্রেরন করতে হবে। এ জন্য ১টি গাড়ীকে এ্যাম্বুলেন্স হিসাবে রেডি রাখবে।
  • অনতি বিলম্বে ফায়ার ব্রিগেডকে প্রয়োজনীয় সহায়তার জন্য টেলিফোন করতে হবে।
  • আগুন লাগার সাথে সাথে থানায় প্রয়োজনীয় পুলিশের সহায়তার জন্য টেলিফোন করতে হবে।

কর্ডন পার্টিঃ- নিরাপত্তায় নিয়োজিত সকল ব্যক্তিবর্গ।

অবস্থান ঃ ফ্যাক্টরীর মেইনগেট ও রাস্তার উপরের মেইনগেট।

দায়িত্ব ঃ অনুপ্রবেশকারীকে প্রতিহত করা এবং সামনের রাস্তাটি গাড়ী চলাচলের জন্য উন্মুক্ত রাখা, যাতে ফ্যাক্টরীর লোকজন নির্বিঘেœ বাসায় গমন করতে পারে এবং ফায়ার ব্রিগেড, এ্যাম্বুলেন্স, পুলিশের গাড়ী চলাচল করতে পারে।

অগ্নিনির্বাপনকারী দল

প্রত্যেক ইউনিট/শাখা/সেকশনের প্রধানগন অগ্নিনির্বাপনের সার্বিক দায়িত্ব পালন করবেন। তাদের তত্ত্বাবধানে ও দলনেতার নেতৃত্বে অগ্নিনির্বাপক দল কাজ করবে। অগ্নিনির্বাপক দলের সংগঠন এবং কর্তব্য সংযুক্ত ক্রোড়পত্রে সন্নিবেশিত হল।

উদ্ধারকারী দল

প্রথমে মানুষ এবং পরে মালামাল উদ্ধার করবে। উদ্ধারকারী দলের সংগঠন এবং দায়িত্ব কর্তব্য সংযুক্ত ক্রোড়পত্রে সন্নিবেশিত হল।

প্রাথমিক চিকিৎসক দল

দুর্ঘটনা কবলিতদের দ্রুত প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান করবে।

আর যথাযথভাবে এই বিধান পালন করতে নিুলিখিত কাজগুলি/দায়িত্বগুলি তাকে সঠিকভাবে পালন করতে হয়।

  • তার অধিনস্ত সকল কর্মচারীদের সম্মিলিত কর্ম প্রচেষ্টার সমন্বয় সাধন করুন, দক্ষ ও শক্তিশালী কর্মশক্তিতে পরিনত করুন।
  • অধিনস্তদের দায়িত্ব ও কর্তব্য ভাগ করে দেওয়া, বুঝিয়ে দেওয়া এবং তাদের কাছ থেকে সর্বোচ্চ কার্য্যক্ষমতা আদায় করে নেওয়া।
  • কারখানার প্রত্যেকটি পয়েন্টে ও মেশিনে নিরাপদভাবে বিদ্যুৎ সরবরাহের নিশ্চয়তা প্রদান করা।
  • নিরাপদভাবে বিদ্যুৎ ব্যবহার নিশ্চিত করা।
  • বিদ্যুৎ চালিত যেকোন যন্ত্রের বা যন্ত্রাংশের রক্ষনাবেক্ষন ও মেরামত কাজের তদারকি করা।
  • বৈদ্যুতিক সাব-ষ্টেশন ও জেনারেটরের রক্ষনাবেক্ষন, মেরামত ও পরিচালন ব্যবস্থার খোজ খবর নেয়া।
  • পবিস কর্তৃক সরবরাহকৃত বিদ্যুৎ ফেল করা মাত্র নিজস্ব জেনারেটর চালিয়ে বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিত করার জন্য ইউটিলিটি ডিপার্টমেন্ট কে সাহায্যে করা।
  • বৈদ্যুতিক মালামালের চাহিদাপত্র যাচাই করা ও নিয়ন্ত্রন করা।
  • নার যেকোন বর্ধিতাংশের বিদ্যুতায়ন করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা।
  • ক্রয়কৃত যাবতীয় বিদ্যুতিক মালামালের মান নিয়ন্ত্রন ও মূল্য যাচাই করা।
  • ক্রেতাদের কারখানা পরিদর্শনের জন্য তাদের চাহিদামত বৈদ্যুতিক ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা।
  • সর্বোপরি নিজের সেকশন পরিচালনার জন্য অধিনস্থদের মাঝে দায়িত্ব বন্টন, ডিউটির সময় নিয়ন্ত্রন তথা যাবতীয় বিষয়াদি সঠিক ভাবে, সঠিক সময়ে সিদ্ধান্ত গ্রহন করে যে কোন উদ্ভুত পরিস্থিতির মোকাবেলা করা।

উপসংহার ঃ-

অগ্নিকান্ডের ভয়াবহ ও অপূরনীয়। জানমালের হেফাজত করা আমাদের নৈতিক দায়িত্ব ও কর্তব্য। অগ্নিকান্ড থেকে আমাদের বেঁচে থাকতে হলে অবশ্যই তা প্রতিরোধ করতে হবে।

আল্লাহ না করেন যদি কোন দুর্ঘটনা ঘটেই যায় তাহলে আমাদের সকলকে সম্মিলিতভাবে সাহসের সংগে তা নির্বাপন বা মোকাবেলা করতে হবে। দায়িত্ব ও কর্তব্য অটো  গ্র“প বর্তমানে বাংলাদেশের অন্যতম বৃহৎ রপ্তানীকমূখি পোশাক শিল্প

By Mashiur

He is Top Class Digital Marketing Expert in bd based on Google Yahoo Alexa Moz analytics reports. He is open source ERP Implementation Expert for RMG Industry. He is certified IT Professional from Aptech, NCC, New Horizons & Post Graduated from London Metropolitan University (External) in ICT . You can Hire him. Email- sales@autogarment.com, Cell# +880 1792525354

Leave a Reply