কাটিংম্যান কি কাজ করে? কাটিংম্যান এবং কাটারদের জন্য নির্দেশাবলী

কাটিংম্যান
কাটিংম্যান এবং কাটারদের জন্য নির্দেশাবলী

কাটিংম্যান এবং কাটারদের জন্য নির্দেশাবলী

কাটিংম্যান এবং কাটারদের জন্য নির্দেশাবলী – ইন্ডাঃ(প্রাঃ) লিঃ কর্তৃপক্ষ এই মর্মে ঘোষনা করছে যে, অত্র প্রতিষ্ঠানে মহিলা শ্রমিক/কর্মচারীদের প্রতি কখনই কোন বৈষম্য বা পক্ষপাতিত্ব মূলক আচরন করা হয় না । কোন অবস্থাতেই তাদের ইচ্ছার বিরুদ্ধে অতিরিক্ত কাজ করানো হয় না। কখনই তাদের সম্মতি ব্যতিরেকে রাত্র ১০টার পর কাজ করানো হয় না। এ ক্ষেত্রে প্রচলিত শ্রম আইনও আই এল ও কনভেনশনের বিধি সমূহ যথাযথ অনুস্বরন করা হয়।

  • কাটিং শুরু করার পূর্বে অবশ্যই কাট প্যানেল চেক করতে হবে ঃ
  • হাতে পরিধান করার জন্য মেটাল গ্লোভস্ / হাত মোজা আছে কি – না।
  • পায়ে পরিধান করার জন স্যান্ডেল আছে কি – না।
  • মুখে পরিধান করার জন্য মাস্ক আছে কি – না।
  • ইলেকট্রিসিটি পাওয়ার লাইন ঠিকমতো কাজ করছে কি – না।
  • কোন বিপদজ্জনক তার রয়েছে কি – না।
  • কাটিং মেশিনের ছুড়ি (ব্লেইড) সঠিকভাবে লাগানো আছে কি – না।
  • মেশিন পরিস্কার পরিচ্ছন্ন আছে কি – না।

কাজ শুরু করার নিয়মাবলী ঃ

  • অপারেটিং হ্যান্ডে ডান হাত রাখুন।
  • বাম হাত দিয়ে সুইচ অন করুন।
  • শ্রেসা ফুট রড নিচে আছে কিনা লক্ষ্য করুন।
  • এবার মার্ক লক্ণ্য করে আপনার কাজ আরম্ভ করুন।

কাটিংম্যান হিসাবে অবশ্যই যা জানা প্রয়োজন ঃ

  • কাটিং ও কাটিং মেশিন সমন্ধে পর্যাপ্ত জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।
  • কাটিংম্যান হিসেবে কারখানা কর্তৃপক্ষের অনুমোদন থাকতে হবে।
  • কাটিং মেশিন ব্যবহারে সতর্ক ও মনোযোগী  হতে হবে।
  • কাটিং এর সময় কারও সাথে কথা বলা যাবে না।
  • অবশ্যই মেটাল গ্লোভস্ / হাত মোজা পরে কাজ করতে হবে।
  • অবশ্যই স্যান্ডেল পরে কাজ করতে হবে।
  • অবশ্যই মাস্ক ব্যবহার করতে হবে।
  • পুরনো ছুড়ি (ব্লেইড) জমা দিয়ে নতুন ছুড়ি (ব্লেইড) নিতে হবে।
  • যেখানে সেখানে ফেব্রিকস্ ফেলে রাখা যাবে না।
  • টেবিল বা বেঞ্চের উপর উঠে কাজ করা যাবে না।
  • কাটিং ইনচার্জ এর নির্দেশ অনুযায়ী মেশিন পরিচালনা করতে হবে।

প্রতিদিন কাজের শেষে অবশ্যই করনীয় ঃ

  • কাটিং মেশিনের সুইচ বন্ধ করতে হবে।
  • বৈদুতিক সংযোগ বিচ্ছিন্ন করতে হবে।
  • কাটিং মেশিন ইনচার্জের তত্ত্বাবধানে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে রাখতে হবে।
  • কার্যস্থল গুছিয়ে রাখতে হবে।

কর্তৃপক্ষ এই মর্মে ঘোষনা করছে যে, অত্র প্রতিষ্ঠানে বন্দী শ্রমিকদের মতো সকল ধরনের বাধ্যতামূলক শ্রম নিষিদ্ধ করা হয়েছে।এই বাধ্যতামূলক শ্রম মানবাধিকার লংঘন। প্রচলিত শ্রম আইন ও আই এল ও কনভেনশনের ২ ও ১৪৫বিধি অনুস্বরন করা হয়।

By Mashiur

He is Top Class Digital Marketing Expert in bd based on Google Yahoo Alexa Moz analytics reports.. He is certified IT Professional from Aptech, NCC, New Horizons & Post Graduated from London Metropolitan University (External) in ICT. Cell# +880 1792525354. যোগাযোগ এর জন্য নিম্নে Leave a Reply এ গিয়ে কমেন্টস Comments করুন

Leave a Reply