কাস্টমস নীতিমালা বাস্তবায়নে কি ভাবে একটি পর্ষদ কার্যকরি ভূমিকা পালন করে।
কাস্টমস নীতিমালা বাস্তবায়নে কি ভাবে একটি পর্ষদ কার্যকরি ভূমিকা পালন করে।

কাস্টমস নীতিমালা বাস্তবায়নে কি ভাবে পর্ষদ কার্যকরি ভূমিকা পালন করে থাকে তার বিবরন

কাস্টমস নীতিমালা বাস্তবায়ন

কাস্টমস নীতিমালা বাস্তবায়নে একটি পর্ষদ গঠন করা দরকার যা এই নীতিমালাটি সঠিকভাবে বাস্তবায়িত হবে কিনা তা পর্যবেক্ষন করে

  •  সভাপতি – নির্বাহী পরিচালক /পরিচালক
  •  সহ-সভাপতি – জি,এম
  •  সাংগঠনিক সম্পাদক এ,জি,এম
  •  সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক – ম্যানেজার
  •  সদস্য – সিনি, এক্সিকিউটিভ
  •  সদস্য – ওয়েলফেয়ার অফিসার
  •  সদস্য – সেকশন / শাখা প্রধান

কার্যকরী প্রকৃয়া ও অনুমোদন

উল্লেখিত নীতিমালা নিয়মতান্ত্রিকভাবে কার্যকরী রাখার ক্ষমতা উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষ কর্তৃক প্রদত্ত। উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের অনুমোদনক্রমে উল্লেখিত পর্ষদ এই নীতিমালা প্রয়োগ ও চলমান রাখতে নীতিগতভাবে দায়বদ্ধ।

The organization/person responsible for implementing the policy

 কাস্টমস নীতিমালা প্রয়োগ ও মূল্যায়ণ পদ্ধতি/প্রকৃয়া

নিম্নোক্ত রপ্তানী নীতি অনুসরন করা একান্ত আবশ্যক।

  •  অর্ডার গ্রহন,
  •  রপ্তানীকৃত কাঁচামাল বায়ারের কাছ থেকে সংগ্রহ করার জন্য এল.সি খোলা হয়।
  •  আমদানী যোগ্য কাঁচামাল সমূহের শুল্ক সর্ম্পকীত নথিপত্র সংগ্রহ করে থাকে।
  • ক্রেতার কাছ থেকে কাঁচামালের স্বীকৃতি গ্রহন।
  • আমদানীর জন্য নথিপত্র প্রস্তুতকরন।
  • চুক্তি বা সম্পর্কজনীত আলাপ আলোচনা বা সন্ধি স্থাপন।
  • রপ্তানী কার্য এগিয়ে নিয়ে যাওয়া।
  • ব্যবস্থাপনা পরিচালক ক্রয় সংক্রান্ত নির্দেশনাবলী প্রদান করেন/ক্রয় সংক্রান্ত অন্যান্য পক্রিয়া বা কার্যাবলী সম্পর্কে বানিজ্য /ব্যবসায়ীক পরিচালক প্রদান করে থাকেন।
  • কমার্শিয়াল বিভাগীয় প্রধান উৎপাদন সংক্রান্ত যাবতীয় পরিকল্পনা প্রণয়ন, মূল্য নির্ধারন এবং তৎসম্পর্কীত সকলের সাথে সম্পর্ক স্থাাপন করে ক্রয় সংক্রান্ত নিয়ম অনুসরন করে থাকেন ।
  • উৎপাদন কার্য সমাপ্ত হবার পর ক্রেতার মনোনীত কোয়ালিটির দ্বারা মান নির্ধারন করা হয়।
  • কমার্শিয়াল বিভাগ রপ্তনী যোগ্য পন্য জাহাজীকরনের মাধ্যমে সংরক্ষণ করে থাকে।
  • চুড়ান্ত পরিদর্শনের পর রপ্তানীকারক কর্তৃক নির্ধারিত ব্যাংক এবং শুল্ক সংক্রান্ত যাবতীয় নথিপত্র প্রস্তুত যেমন, চালান, প্যাকিং তালিকা ইত্যাদি তৈরী করে সংশ্লিষ্ঠ সংস্থার কাছে হস্তান্তর করা হয়।
  • সংস্থা শিপমেন্ট সংক্রান্ত যাবতীয় বিল এবং যাবতীয় আনুষ্ঠানিকতা পূরনের পর সকল নথিসমূহ পন্য শিপিং এর জন্য পাঠিয়ে দেয়। পন্য গন্তব্যে পৌছানোর জন্য সর্ম্পকীত সংস্থা পন্য খালাশ করে থাকে।
  • যান বিক্রয়ের পর শিপিং লাইনের যাবতীয় নথিপত্র সমূহ সংশ্লিষ্ট ব্যাংকের কাছে চালান পত্র,প্যাকিং লিস্ট এবং অন্যান্য নথিপত্র সমূহ এল,সি অনুযায়ী গ্রহন করে থাকে।
    রপ্তানী দ্রব্য গহন।
  • সবশেষে ব্যাংকের মাধ্যমে সকল কার্যাবলী সঠিকভাবে সম্পন্ন হয়েছে এবং কাগজপত্র বন্ধ করা হয়েছে এই মর্মে অনুমোদন প্রদান করে থাকে।

দায় দায়িত্ব, কর্তৃপক্ষ এবং যোগাযোগ

  • দায়-দায়িত্ব এবং কতৃপক্ষঃ কমার্শিয়াল পরিচালক শুল্ক আইন সংক্রান্ত বিভিন্ন ধরনের প্রশিক্ষণ কর্মসূচী দিয়ে থাকে এবং তৎসংশ্লিদের স্বাক্ষর গ্রহন করে থাকে।

The communication and implementation of routines
নীতিমালা সম্পর্কে অবহিত করন/ যোগাযোগ

কর্মক্ষেত্রে আইন ও শৃঙ্খলা জনিত নীতিমালা নোটিশ বোর্ড, মিটিং, ট্রেনিং, ই-মেইলিং, পি,এ সিষ্টেম ইত্যাদির মাধ্যমে সকলকে অবগত করা হয়। এছাড়াও দ্বায়িত্বপ্রাপ্ত সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ও ওয়েলফেয়ার অফিসার ও এইচ আর এন্ড কমপ্লাইন্স অফিসারগরেন মাধ্যমে অবহিত করা হয় এবং এই নীতিমালার যাবতীয় কার্যক্রম নথিভূক্ত করা হয়।

Feedback and control

ফিডব্যাক ও কন্ট্রোল

এই নীতিমালা ফ্যাক্টরীর স্বাভাবিকতা রক্ষা করতে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। এই পলিসি কারখানায় বাস্তবায়ন করার লক্ষ্যে কর্তৃপক্ষ সর্বদা সচেতন এবং সার্বিক ব্যাবস্থা গ্রহন করে। এর পরও যদি পলিসি বাস্তবায়ন না হয় বা বাস্তবায়নের পথে কোন বাধাঁর সস্মুখীন হয় , তবে সদা নিয়ন্ত্রন করার জন্য কার্যকরী পরিষদ ও নির্বাহী পরিচালক ব্যাবস্থা গ্রহন করবেন। এমনকি মাননীয় ব্যাবস্থাপনা পরিচালকের হস্তক্ষেপ অন্তর্ভুক্ত করা যেতে পারে।

পরিশিষ্ঠ

বায়ারের চাহিদা পূরন ও সুষ্ঠ ভাবে ব্যবসা পরিচালনা করতে শুল্ক নীতি বাস্তবায়নে কর্তৃপক্ষ বদ্ধ পরিকর।

পরিচিতি Nazmul Islam

এটাও চেক করতে পারেন

বিপদ সংকেত কি কারখানায় হুমকি বিষয়ক কর্মসূচী কি কি

বিপদ সংকেত কি? কারখানায় হুমকি বিষয়ক কর্মসূচী কি কি?

বিপদ সংকেত বিপদ সংকেত কি ? কোন সন্ত্রাসী কর্তৃক আক্রমনের পূর্বাভাষ পাওয়া গেলে, আক্রমন হলে, …

Leave a Reply