পেনেল বোর্ড কি? কিভাবে পেনেল বোর্ড অপারেটিং করতে হয়?

পেনেল বোর্ড কি কিভাবে পেনেল বোর্ড অপারেটিং করতে হয়
পেনেল বোর্ড কি কিভাবে পেনেল বোর্ড অপারেটিং করতে হয়

পেনেল বোর্ড অপারেটিং

কিভাবে পেনেল বোর্ড অপারেটিং করতে হয়- অগ্নি নির্বাপক দলের সদস্য, সুপারভাইজার, কিংবা দায়িত্বশীল কর্মকর্তাগণ দূর্ঘটনা সম্বন্ধে নিশ্চিত হওয়ার পর এই সংকেত বাজাবেন। পেনেল বোর্ড অফ করতে হলে প্রথমে প্যানেল বোর্ড বক্স এর ঢাকনা খুলতে হবে; ভিতরে দুইটি বার ভোল্ট এর ডিসি (ডাইরেক্ট কারেন্ট) ব্যাটারি রয়েছে। ব্যাটারির উপরে সার্কিট ব্রেকার রয়েছে তা অফ করে ; এসি (অল্টারনেটিভ কারেন্ট) পাওয়ার সাপ্লাই এর উপরে সার্কিট ব্রেকার রয়েছে তা  অফ করে দিতে  …

প্রথমে জরুরী মুহুর্তে ফায়ার এলার্ম সুইচ লিখিত লাল বক্্রটির অৎৎড়ি চিহ্নিত গ্লাসটিতে চাপ দিন। শুধুমাত্র অগ্নি দূর্ঘটনা কিংবা এরুপ প্রয়োজনে এই সংকেত বাজানো যাবে। প্যানেল বোর্ড অন করতে হলে প্রথমে  প্যানেল বোর্ড বক্স এর ঢাকনা খুলতে হবে; এসি (অল্টারনেটিভ কারেন্ট) পাওয়ার সাপ্লাই এর উপরে সার্কিট ব্রেকার রয়েছে তা  অন করে দিতে হবে। ভিতরে দুইটি বার ভোল্ট এর ডিসি (ডাইরেক্ট কারেন্ট) ব্যাটারি রয়েছে, ব্যাটারির উপরে সার্কিট ব্রেকার রয়েছে তা অন করে দিতে হবে।

প্যানেল বোর্ড ডিসপ্লে ফাংশন বাটন ব্যবহার করার নিয়মাবলি-

  • বহর্গিমনরেপথ সকল সময় বাধামুক্ত রাখতে হবে এবং চলাচলরে পথ বাঁধাগ্রস্ত রাখা যাবে না।এই সংকেতের অপব্যবহার/অপ্রয়োজনীয় ব্যবহার সম্পুর্ণ নিষিদ্ধ।। ম্যানুয়াল কল পয়েন্ট এ সমস্যা হলে ডিসপ্লেলতে এম সি পি দেখাবে।
  • ডিটেক্টর সিস্টেমে সমস্যা দেখালে ডিসপ্লেলতে এটোম দেখাবে।
  • সিস্টেম অন / ফল্ট ঃ প্যানেল বোর্ড এর পাওয়ার সাপ্লাই এবং ফাংশন এর মাঝে কোন প্রকার সমস্যা না থাকলে অন এল ই ডি (লাইট ইমিটিং ডায়োড) জ্বলবে এবং কোন প্রকার সমস্যা থাকলে ফল্ট এল ই ডি (লাইট ইমিটিং ডায়োড) জ্বলবে ।
  • মোর এলার্ম ঃ অনেক গুলো এলার্ম প্যানেল বোর্ড ডিসপ্লেতে রয়ে গেলে মোর এলার্ম এল ই ডি (লাইট ইমিটিং ডায়োড) জ্বলবে।
  • রিমোট এলার্ম ঃ কোন রিমোট ট্রান্সমিটার না থাকার কারণে রিমোট এলার্ম ফল্ট এল ই ডি (লাইট ইমিটিং ডায়োড) জ¡েল; যদি রিমোট ট্রান্সমিটার থাকতো তাহলে একটিভ থাকতো ফলে রিমোট এলার্ম ফল্ট এল ই ডি (লাইট ইমিটিং ডায়োড) জ্বলতো না।
  • এলার্ম ডিভাইস ঃ দায়িত্বে নিয়োজিত ব্যক্তিবর্গ প্রতি মাসে একবার এই সংকেতের কার্যকারিতা পরীক্ষা করবেন।যখন এলার্ম আসে বা প্রি এলার্ম আসে তখন একটিভ এল ই ডি (লাইট ইমিটিং ডায়োড) জ্বলবে; এলার্ম বন্ধ করে দিলে ফল্ট এল ই ডি (লাইট ইমিটিং ডায়োড) জ্বলবে।
  • কনট্রোল ফাংশন ঃ কোন ক্যাবল কান্কেশন মিসিং হলে এবং প্যানেল বোর্ড এর অন্য কোথাও ম্যাজর প্রবলেম দেখা দিলে ফল্ট এল ই ডি (লাইট ইমিটিং ডায়োড) জ্বলবে।
  • ফল্ট ঃ কিছু সংখ্যক এলার্ম ডিসপ্লেতে রয়ে গেলে ফল্ট এল ই ডি (লাইট ইমিটিং ডায়োড) জ্বলতে থাকবে।
  • আইসোলেশন ঃ কোন ডিভাইস অটো কনফিগারেশন নিলে, এডযাস্ট না হলে, হেং করলে, ক্যাবল লাইন মিসিং থাকলে আইসোলেশন এল ই ডি (লাইট ইমিটিং ডায়োড) জ্বলতে থাকবে।
  • ডিটেক্টর টেস্ট ঃ কোন ডিটেকটর টেস্ট করলে ডিটেক্টর টেস্ট এল ই ডি (লাইট ইমিটিং ডায়োড) জ্বলতে থাকবে।
  • সাইলেন্স বাজার ঃ যখন এলার্ম আসে তখন প্যানেল বোর্ড এর ভিতরের স্পিকার বাজে, যদি এলার্ম বন্ধ করে দিলেও প্যানেল বোর্ড এর ভিতরের স্পিকার বন্ধ না হয়, তা হলে সাইলেন্স বাজার বাটনে ক্লিক করতে হবে। প্রশক্ষিণরে মাধমে র্কমীদরে সচতেন করা।
  • এ্যক্নোলেজ ঃ জরুরী অবস্থার জন্য সকল ধোঁয়া সনাক্তকারী যন্ত্র সক্রয়ি রাখার ব্যবস্থা করা।এলার্ম বন্ধ করার জন্য এ্যক্নোলেজ বাটনে ক্লিক করতে হয়।
  • পেনেল বোর্ড এর সাথেই যে বক্স এরনাম ইনক্লুজার বক্সযার মাঝে রয়েছে ৮টি পাওয়ার সাপ্লাই। যা ভি ই এস ডি এ সিস্টেমকে নিয়ন্ত্রন করে।
  • রিস্টে ঃ প্যানেল বোর্ড ডিসপ্লেতে এলার্ম রয়ে গেলে তা দেখে সমস্যা সমাধান করে রিস্টে বাটনে ক্লিক করলে প্যানেল বোর্ড নর্মাল পজিস্নে ফিরে আসবে।
  • এলার্ম ডিলে অফ ঃ কতটা সময় পরে ফায়ার এলার্ম বাজবে তা নির্ধারন করে দেওয়া যায় এলার্ম ডিলে অফ বাটন এর মাধ্যমে।
  • প্রিমিস্সে ম্যানেড ঃ কোন ডিভাইস রিমুভ করলে বা সিফ্ট করলে প্রিমিস্সে ম্যানেড এল ই ডি (লাইট ইমিটিং ডায়োড) জ্বলবে।
  • মেশিনের মোটর অতিরিক্ত গরম হচ্ছে কিনা সে দিকে লক্ষ্য রাখা এবং মোটর গরম হলে তা বন্ধ করা।  প্যানেল বোর্ড ডিসপ্লেতে এলার্ম হলে যে স্গিনাল আসে এবং তা বিস্তারিত দেখা যায় এই সিস্টেমটি ফাংশন অফ দ্যা মেইন এ টপোলজি ফাংশন থেকে ইন্সটল করা যার দরূণ ডিসপ্লেতে ইন্ডিভিজুয়াল জোন্ ডিভাইস, এরিয়া, মডেল নং,লুপ নং ইত্যাদি।
  • প্যানেল বোর্ড এ মোট ৩,০০,০০০ (তিন লাখ) হিস্ট্রি জমা থাকবে।
  • জরুরী অবস্থার জন্য সকল আইলস র্মাক বাধামুক্ত রাখা ও নরিাপদ বহর্গিমনরে পথ নশ্চিতি করা।Auto এক্সেসরিজ লিঃ প্যানেল বোর্ড এর ডিটেকশন সিস্টেম এড্রেসেবল। তাই প্রতিটি ডিটেকটর আলাদা আলাদা ভাবে সিগনাল প্রদান করে।
  • ভিম ডিটেকটর সেট করতে হয় ৩০ফিট উপরে; কিন্তু একোর্ড ও এলায়েন্স এর মতে ২০ফিট উপরে সেট করতে  হয়।
  • ভিম ডিটেকটর – এর কাজ হল এর ডিসপ্লের মাঝে কোন প্রকার ছায়া পড়লে ভিম ডিটেকটর সিগনাল প্রদান করবে।
  • জরুরী অবস্থার জন্য সকল সঁিড়ি ও বহর্গিমন পথ  বাধামুক্ত রাখা ও নরিাপদ বহর্গিমনরে পথ নশ্চিতি করা।
    প্যানেল বোর্ড থেকে ডিটেকটর সিস্টেম ৩ ফিট্ দূরত্তে সেট করতে হয়।
  • ডিটেকটর বেসিস সেট করতে হয় সিলিংয়ে;এর কানেকশন ব্যতিত কোন ডিটেকটর একটিভ হবে না।
  • জরুরী অবস্থার জন্য সকল জরুরী আলো, ফগ লাইট, আই পি এস সক্রয়ি ও র্পযাপ্ত সরবরাহরে ব্যবস্থা নশ্চিতি করা। হিট ডিটেকটর -এর কাজ হল- তাপমাত্রা ৫৭ডিগি সে. ওভার করলে সিগ্যনাল প্রদান করবে।এর সেন্িসটিভিটি ৩.২৫ পার সে. এবং তাপমাত্রা ৫৭ডিগ্রি সে.কিন্তু একোর্ড এর মতে ৬০ ডিগ্রি সে.।
  • জরুরী অবস্থার জন্য সকল ফায়ার এক্সটংিগুইশার সক্রয়ি ও র্পযাপ্ত এক্সটংিগুইশার সরবরাহরে ব্যবস্থা নশ্চিতি করা।হিট এবং মাল্টি সেন্সর ডিটেকটরের ক্ষেত্রে রেইট অফ রাইস্ কাজ করে। এখানে রেইট অফ রাইস্ হচ্ছে প্রতি সেকেন্ডে কত পার সে. কাজ করছে।
  • স্মোক ডিটেকটর – এর কাজ হল- ধোঁয়া সনাক্ত করা।
  • ভি ই এস ডি এ – ভেরি আরলি সিগ্যনাল ডিটেকশন সিস্টেম
  • জরুরী অবস্থার জন্য সকল ফায়ার হােজ রলি ও পাইপ সক্রয়ি ও র্পযাপ্ত পানি সরবরাহরে ব্যবস্থা নশ্চিতি ।ভি ই এস ডি এ – হল একটি – কনভেনশনাল ঝুন মানে সে একাই সমস্যা হলে সিগ্যনাল প্রদান করতে পারে। তবে এইটা মডুয়াল এর মাধ্যমে ইনপুট সিগ্যনাল মানে এলার্ম দিবে কারণ মডিউল ছারা সে এলার্ম দিতে পারে না।

By Mashiur

He is Top Class Digital Marketing Expert in bd based on Google Yahoo Alexa Moz analytics reports. He is open source ERP Implementation Expert for RMG Industry. He is certified IT Professional from Aptech, NCC, New Horizons & Post Graduated from London Metropolitan University (External) in ICT . You can Hire him. Email- [email protected], Cell# +880 1792525354

Leave a Reply