তীক্ষ যন্ত্রপাতি Sharp Tools
তীক্ষ যন্ত্রপাতি Sharp Tools ব্যবহার নীতিমালা বর্ণনা

তীক্ষ যন্ত্রপাতি Sharp Tools ব্যবহার নীতিমালা সমুহের বর্ণনা

তীক্ষ  যন্ত্রপাতি ব্যবহার নীতিমালা

ভূমিকা:

তীক্ষ যন্ত্রপাতি Sharp Tools ব্যবহার নীতিমালা বর্ণনা – অটো  সর্বপ্রথম তাহার শ্রমিকদের স্বাস্থ্য নিরাপত্তা এবং কাজের সুষ্ঠ পরিবেশ নিশ্চিত করেন। অটো  বিশ্বাস বরেন কর্মক্ষেত্রে সুষ্ঠ পরিবেশ ও স্বাস্থ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পারলে সেখানে উৎপাদনও আশানুরূপ বৃদ্ধি পাবে। সেই ক্ষেত্রে অটো  তাহার কর্ম পরিবেশে ধারালো বস্তু ব্যবহারের লক্ষ্যে কিছু সু-নির্দিষ্ট নীতিমালা প্রণয়ন করেছেন যাহা নিুরূপ। Read in English

উদ্দেশ্য:

প্রতি লাইনের সুপাভাইজার/লাইনচীপ এর দায়িত্ব যথাযথ চালানের মাধ্যমে সিজার ও কাটার ষ্টোর থেকে উত্তোলন করে এবং রেজিষ্টারের মাধ্যমে এন্ট্রি করা পূর্বক শ্রমিকদের নাম লিখা ও বাধা অবস্থায় শ্রমিকদের প্রদান করবেন। ফ্যাক্টরীতে বিভিন্ন কাজে ব্যবহৃত বিভিন্ন তীক্ষ যন্ত্রপাতি সমুহ প্রোডাকশনের জন্য যেমন প্রয়োজনীয় একইভাবে এ সকল যন্ত্রের তীক্ষèতার জন্য এগুলোর ব্যবহার অনেকাংশেই ঝুঁিকপূর্ণ। ফ্যাক্টরীতে ব্যবহৃত এ সকল যন্ত্রপাতি ব্যবহারের ক্ষেত্রে সাবধানতা অবলম্বন যেমন অপরিহার্য তেমন এ সকল যন্ত্রপাতি ব্যবহারের ক্ষেত্রে  পার্সোনাল প্রোটেকটিভ ইকুইপমেন্ট  এর ব্যবহার আবশ্যকীয়। অত্র ফ্যাক্টরীতে ব্যবহৃত তীক্ষè যন্ত্রপাতির হ্যান্ডলিং এর ক্ষেত্রে নি¤œ লিখিত কর্ম পদ্ধতি অনুসরন করতে হবে।

তীক্ষ যন্ত্রপাতির পরিচিতি ঃ-

০১। সীজার  ০২। কাটার ০৩। ভোমর ০৪। নাইফ ( ফেব্রিক্স কাটিং) ০৫।  ক্লাম্প  ০৬। বেল্ট ০৭। নিডেল ০৮। ইত্যাদি।

দূঘর্টনা প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা ঃ-

০১। প্রশিক্ষণ ঃ- ফ্যাক্টরীতে কর্মরত যে সকল শ্রমিক এবং কর্মচারী তীক্ষ যন্ত্রপাতি ব্যবহার করে থাকে তাদেরকে এসব যন্ত্রপাতি ব্যবহারের পদ্বতি এবং সতর্কতা সম্পর্কে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে সচেতন করতে হবে। প্রশিক্ষণ কার্যক্রমে নতুন যোগদানকৃত শ্রমিক কর্মচারী এবং পূরোনো শ্রমিকদের জন্য বাধ্যতামূলক করতে হবে।

আতœরক্ষামূলক সরঞ্জামাদি ঃ-

  • তীক্ষè যন্ত্রপাতি ব্যবহারের সময় দূঘর্টনা এড়ানোর জন্য আতœরক্ষামূলক সরঞ্জামাদির ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে। এ বিষয়ে নি¤œলিখিত কর্মপদ্বতি অনুসরন করতে হবে।
  • ফ্যাক্টরীর কাটিং সেকশনের হ্যান্ড কাটিং মেশিনের  সাথে সংশ্লিষ্ট কার্টার ম্যানকে যথাযথ মাপের ধাতব গ্লাভস সরবরাহ করতে হবে এবং কাজের সময় এর ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে যাতে কাটিং মেশিনের নাইফ ও বেল্ট দ্বারা কোন দূর্ঘটনা না হয়।
  • কর্মকালীন ব্যবহৃত সীজার, কার্টার এবং ভোমর অবশ্যই যথাযথ মাপের ফিতা / রশি দিয়ে বেধে রাখতে হবে যাতে এগুলো অসাবধানতা বশতঃ পড়ে গিয়ে দূঘর্টনা সৃষ্টি করতে না পারে।
  • কাটিং এ ফেব্রিক্স ক্লাম্পিং করার  সময় সর্তকতা অবলম্বন করতে হবে যাতে দূঘটনা না হয়। ।
  • সুইং মেশিনে কাজ করার সময় অবশ্যই নিডেল গার্ড এবং আই গার্ড ব্যবহার করতে হবে। কোন নিডেল ভেঙ্গে গেলে তৎক্ষনিক ভাংগা অংশ গুলো ষ্টোরে জমা দিয়ে নতুন নিডেল সংগ্রহ করতে হবে। নিডেলের কোন অংশ খুজে না পাওয়া গেলে নিডেল সার্চিং চৌম্বক ক্ষেত্র দিয়ে ভাল ভাবে চেক করতে হবে। চেকিং এ নিডেল সনাক্ত করতে ব্যর্থ হলে উক্ত গার্মেন্টসটি  মেটাল ডিটেকটর মেশিন দিয়ে  চেক করতে হবে , নিডেল পাওয়া না গেলে  রিজেক্ট বিন -এ  সংরক্ষন করতে হবে এবং পরে পুড়িয়ে ফেলতে হবে।

মেটাল ডিটেক্টর চেকিং ঃ-

ফ্যাক্টরীতে উৎপাদিত সকল গার্মেন্টস  প্যাকিং এর পূর্বে মেটাল ডিটেক্টর মেশিনের সাহায্যে চেকিং নিশ্চিত করতে হবে।

এছাড়া অন্যান্য যে কোন তীক্ষè যন্ত্রপাতি ব্যবহারের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় সতর্কতা শতভাগ অবলম্বন করতে হবে।

যন্ত্রপাতির নিরাপত্তা নীতিমালা

ফ্যাক্টরীতে কর্মরত সকল কর্মকর্তা ও শ্রমিকদের ব্যক্তিগত নিরাপত্তার প্রতি দৃষ্টি রাখা প্রাথমিক দায়িত্ব। গ্রুপ বিশ্বাস করে যে, প্রত্যেকে সচেতন থাকলেই দলগত কিংবা সমষ্টিগত নিরাপত্তা বজায় রাখা সম্ভব। একজন শ্রমিক যতক্ষণ ইউনিট/ফ্লোরে থাকে,ততক্ষণ কোন না কোন মেশিনেরসাথে সম্পৃক্ত থাকে। তাই মেশিন সংক্রান্ত যে যে নির্দেশ পালন করতে হবে তা নি¤েœ উল্লেখ করা হলঃ

  • কাঁচি কিংবা কাটার রশি দিয়ে এমনভাবে বেঁধে রাখতে হবে যাতে পড়ে গেলে কোনভাবেই আঘাতপ্রাপ্ত না হয়।
  • বাটন মেশিনের বেল্ট কভার না থাকলে মেশিন চালানো যাবে না।
  • যে সমন্ত মেশিন প্যাডেলের সাথে চেইন দ্বারা সংযোগ থাকে, সেই সমস্ত মেশিন চেইনের পরিবর্তে  সুতা, তার কিংবা রশি দ্বারা সংযোগ করে চালানো যাবে না।
  • প্যাডেল কিংবা ষ্ট্যান্ডের মধ্যে অপারেটারে শরীরের অংশ ক্ষতি হতে পারে এমন কোন ধারালো অবস্থা থাকবে না।
  • মেশিন চালানোর সময় মেশিন কাঁপলে কিংবা অস্বাভাবিক কোন শব্দ হলে মেশিন চালানো যাবে না।
  • মেশিন চলাকালীন সময়ে কারও সাথে কথা বলা যাবে না।
  • অসুস্থ্য শরীরে কিংবা তন্দ্রা বা ঝিমুনী আসলে মেশিন চালানো যাবে না।
  • স্ন্যাপ বাটন মেশিনে প্রতি চাপের সময় আঙ্গুল নিরাপদ স্থানে আছে কিনা সেই দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে।
  • স্ন্যাপ বাটন মেশিনে রিপিট বা ¯œ্যাপের নীচের পার্ট দেওয়ার আগে উপরের পার্ট  মোল্ডে নিতে হবে।
  • মেশিন চালানোর সময় শাড়ী, ওড়না, সেলোয়ার কামিজ যাতে মেশিনের ঘূর্ণায়মান অংশের সাথে জড়িয়ে না যায় সেদিকে সর্বদা লক্ষ্য রাখতে হবে।
  • কাজ কারার সময় চুল খোপা বা বেনী বেঁধে কাজ করতে হবে। চুল খোলা অবস্থায় কাজ করা যাবে না।
  • বাটন হোল, বাটন ষ্টীচ, ওভার লক, বারটেক মেশিনে সেফটি গ্লাস (ঝধভঃু এষধংং) থাকতে হবে অথবা গগল্স  (এড়মমষবং) ব্যবহার করতে হবে।
  • ওভারলক মেশিনের অপারেটারকে অবশ্যই মুখোশ (গধংশ) পরিধান করতে হবে।
  • সকল সুইং প্লেইন মেশিনে নিড্ল সেফটি গাইড (ঘববফষব ঝধভঃু এঁরফব) থাকতে হবে।
  • সকল সুইং ওভার লক /  ফ্লাট লক মেশিনে সেফটি গ্লাস (ঝধভঃু এষধংং) থাকতে হবে।
  • কাটিং মেশিনে কাজ করতে হলে সর্বদা ষ্টীল হ্যান্ড গ্লাভস (ঐধহফ এষড়াবং) পরতে হবে।
  • কাটিং মেশিনের বেস প্লেট (ইধংব চষধঃব) মসৃন থাকতে হবে।

স্ক্র-ড্রাইভার/প্লাস ব্যবহার নীতি:– অটো  এর সকল ইউনিটের ইলেকট্রিশিয়ান/মেইনটেনেন্স শাখায় এই মর্মে অবহিত করা রয়েছে যে, ইলেকট্রিশিয়ান ও মেইনটেইনেন্স কর্মীরা ফ্লোরের মধ্যে চলাচলের জন্য অবশ্যই স্ক্র ড্রাইভার, প্লাস এবং ধারালো কোন ব্লেড অবশ্যই রাবারের ব্যাগের মধ্যে প্রবেশ করিয়ে ফ্লোরে চলাচল করতে হবে। সেই লক্ষ্যে যথাযথ রাবার ব্যাগ সরবরাহ করা হয়েছে।

সিজার/কাটার ব্যবহার নীতি: অটো  এর সকল শ্রমিকদের সিজার ও কাটার তাদের স্ব স্ব মেশিনের সহিত বাধা অবস্থায় রাখা হয়েছে এবং সিজার ও কাটারের উপর ব্যবহারকারী শ্রমিকের নাম লিখা রয়েছে। অটো  শ্রমিকদের স্বাস্থ্য নিরাপত্তার জন্য এই পদ্ধতি প্রয়োগ করেছেন যেন এক শ্রমিকের ব্যবহৃত সিজার ও কাটার অন্য কোন শ্রমিক ব্যবহার করতে না পারে এবং উক্ত সিজার ও কাটার নিয়ে অবাধে যেন শ্রমিকরা ফ্লোরে চলাচল করতে না পারেন।

কাটার মেশিনের ব্লেড : গার্মেন্টস সেক্টর গুলিতে ধারালো বস্তু হিসাবে কাটার মেশিনের ব্লেড (ঝযধৎঢ়) কে প্রাধান্য বেশী দেওয়া হয়। আর সেই জন্যই কাটার মেশিনের ব্লেড (ঝযধৎঢ়) ব্যবহার নীতিমালার ক্ষেত্রে অটো  সক্রিয় ভূমিকা পালন  করেছে। কাটার মেশিনের ব্লেড  যদি পরিবর্তনের প্রয়োজন হয় সেই ব্লেডটির ক্ষেত্রে অবশ্যই কাগজ/কাপড় দিয়ে ভালভাবে মুড়িয়ে যেন কেউ আঘাত প্রাপ্ত না হয় সেই ভাবে হয়ষ্টোরে জমা দিতে হবে এবং ষ্টোর পরিবর্তীতে ব্লেডটি যথাযথ ভাবে কসটেপ েিদয় রেজিষ্টারে আটকিয়ে রেখে নতুন ব্লেড (ঝযধৎঢ়) ইস্যু করবেন। ইস্যুকৃত নতুন ব্লেডটি পুনরায় কাগজ/কাপড় দিয়ে মুড়িয়ে সাবধানতার সহিত সেকশনে নিয়ে যেতে হবে এবং কাটার মেশিনে লাগাতে হবে। অটো  কাটার মেশিনের ব্লেড (ঝযধৎঢ়) যত্রতত্রভাবে ব্যবহার না করার উদ্দেশ্যে এই নীতি অনুসরন করেন। এ্যাডমিন শাখা প্রতি মাসের শেষে ষ্টোরে পুরাতন ব্লেড এবং ইস্যুকৃত নতুন ব্লেডের সামানঞ্জস্য নিয়ে কর্তৃপক্ষকে রিপোর্ট দাখিল করেন। কাটার মেশিনের পরিবর্তনের ক্ষেত্রে অবশ্যই মেইনটেনেন্স শাখাকে অবহিত করিতে হইবে। যে কোন ধারালো বস্তু ব্যবহারের ক্ষেত্রে অটো  গ্র“প ১০০% সতর্কতা অবলম্বন করেন।

পরিচিতি Mashiur

He is Top Class Digital Marketing Expert in bd based on Google Yahoo Alexa Moz analytics reports. He is open source ERP Implementation Expert for RMG Industry. He is certified IT Professional from Aptech, NCC, New Horizons & Post Graduated from London Metropolitan University (External) in ICT . You can Hire him. Email- [email protected], Cell# +880 1792525354

এটাও চেক করতে পারেন

সিটি প্যাট

সিটি প্যাট মানদন্ড পরিচালনার বিশেষ প্রক্রিয়া গুলো কি কি

সিটি প্যাট মানদন্ড পরিচালনার প্রক্রিয়া (কাস্টমস-ট্রেড-পার্টনারশিপ এগেইনস্ট টেরোরিজম) এর অর্থ         (সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে আমদানী-রপ্তানী ও …

Leave a Reply