স্যাম্পল কাটা এবং ওয়াশ করার নিয়মাবলী গুলো কি কি?

স্যাম্পল কাটা এবং ওয়াশ করার নিয়মাবলী গুলো কি কি?
স্যাম্পল কাটা এবং ওয়াশ করার

স্যাম্পল কাটা এবং ওয়াশ করার নিয়মাবলীঃ

স্যাম্পল কাটা এবং ওয়াশ করার নিয়মাবলী গুলো – জাতীয় ও আন্তর্জাতিক আইন মেনে আমাদের প্রায় সকল কেমিক্যালই বিদেশ থেকে আমদানী করা হয়। আমাদের বিকল্প কেমিক্যাল মূল্যায়ণ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে আমরা সজাগ থাকি এবং কেমিক্যাল প্রয়োগের ক্ষেত্রে নতুন কোন আবিষ্কার বা প্রবর্তনের সাথে নিজেদেরকে হালনাগাদ রাখি। যেমন- আমরা Huntsman নামক স্বনামধন্য কেমিক্যাল প্রস্তুতকারকের ডাইস্টাফ ‘Avitera SE’ ব্যবহার করি, যা ‘সেভ ডা আর্থ’ শিরোনামে স্বয়ং প্রস্তুতকারক কর্তৃক বাজারজাত করা হয়। কেমিক্যাল সংগ্রহ বা প্রোক্রিউরমেন্ট বলতে শুধুমাত্র কেমিক্যাল ক্রয় করাক বুঝায় না, বরং এর সাথে সাথে কেমিক্যাল সংশ্লিষ্ট সকল তথ্যাদি যেমন- এমএসডিএস, টিডিএস, লেবেল, হ্যাজার্ড সিম্বল এবং সার্টিফিকেটসমূহ (আরএসএল ডিক্লারেশন লেটার, এপিও-ফ্রি সার্টিফিকেট ইত্যাদি) প্রস্তুতকিরী অথবা সরবরাহকারীর নিকট থেকে সংগ্রহ করাও এর অন্তর্ভুক্ত।এ সকল তথ্যাদি এবং সার্টিফিকেটসমূহ আবার সময়ের সাথে সংগতি রেখে সরবরাহকারী/প্রস্তুতকারীর মাধ্যমে হালনাগাদ করা হয়।

  1. প্রথমে ডাইং মেশিনের অপারেটর হ্যান্ড গ্লাভস পরে নিবে।
  2. ডাইং মেশিন স্টপ করার পর দ্রুততার সাথে স্যাম্পল কাটতে হবে এবং স্যাম্পল কাটা শেষ হলেই ডাইং মেশিন দ্রুত রান করতে হবে।
  3. মেশিন স্টপ হওয়া থেকে রান করা পর্যন্ত সময় বেশি নিলে সাইকেল টাইম বেশি হয়ে রানিং শেড আসতে পারে।
  4. স্যাম্পলটা একটা পরিষ্কার মগে নিয়ে প্রথমে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে হাত দিয়ে ধুতে হবে।
  5. স্যাম্পল ওয়াশ করার জন্য টেম্পারেচার ৯০ ডিগ্রী সেলসিয়াস থাকতে হবে।
  6. তারপর মগে পানি নিয়ে তার মধ্যে ১০ ফোটা ওয়াশ অফ দিতে হবে এবং স্যাম্পলটাকে ২০ বার কাঠি দিয়ে নাড়তে হবে।
  7. ৬ নাম্বার প্রক্রিয়া আরও ২ বার পুনরাবৃত্তি করতে হবে।
  8. তারপর ৯০ ডিগ্রী তাপমাত্রায় নরমাল ওয়াশ করতে হবে।নরমাল ওয়াশের ক্ষেত্রে ১০ বার কাঠি দিয়ে নাড়াচাড়া করতে হবে।
  9. তারপর মগের পানি ফেলে দিয়ে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে স্যাম্পল ধুতে হবে এবং স্যাম্পল ড্রায়ার এ শুকাতে হবে।

টি,ছি,এফ,এম,এস স্যাম্পল অডিট চেক লিস্ট   

১.শিশু পোশাকের ঝুকি নিরুপন সঠিকভাবে এবং নিয়মিত হয় কিনা।

২. ঝুকি নিরুপন ম্যানুয়াল সেকশনে রাখা হয় কিনা।

৩.নির্দিষ্ট ঝুঁকিটি রেকর্ড রাখা হয় কিনা এবং নিয়ন্ত্রন হয় কিনা।

৪.স্টাইল ফাইলে ঝুঁকি নিরুপন পেপারটি রাখা হয় কিনা।

৫.ডিজাইন পর্যায়ে ঝুঁকি নিরাপদ হয় কিনা।

৬.ঝুঁকি নিরাপদ পক্রিয়া বাৎসরিক মুল্যায়ন হয় কিনা ।

৭.ঝুঁকি নিরাপদ পক্রিয়াটি বিস্তারিত নথিবদ্ধ আছে কিনা, রেকর্ডকৃত আছে কিনা এবং দ্বায়িত্ব নির্দিষ্ট আছে কিনা।

৮.মেনুফেকচারি অপারেশনের ফ্লো চার্ট আছে কিনা।

৯.সকল প্যাটার্নের এমেন্ডমেন্ড রেকর্ড পরিষ্কারভাবে রাখা হয় কিনা তারিখসহ।

১০.প্রত্যেক ডাইলটের মেজারমেন্ট কন্ট্রোল করার জন্য স্রিংকেজ করা হয় কিনা।

১১.ওয়াশের পূর্বে এবং পরে মেজারমেন্ট করা হয় কিনা।

১২.সকল এমবেলিশমেন্ট গুনগতমান এবং নিরাপদ এটাচমেন্ট নিশ্চিত করা হয় কিনা।

১৩.সকল পণ্য মেটাল ডিটেক্টরে পাশ করে কিনা?

১৪.মেশিন গার্ড ,আই গার্ড ঠিক আছে কিনা।

By Mashiur

He is Top Class Digital Marketing Expert in bd based on Google Yahoo Alexa Moz analytics reports.. He is certified IT Professional from Aptech, NCC, New Horizons & Post Graduated from London Metropolitan University (External) in ICT. Cell# +880 1792525354. যোগাযোগ এর জন্য নিম্নে Leave a Reply এ গিয়ে কমেন্টস Comments করুন

Leave a Reply